মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:২৫ অপরাহ্ন

ম্যাচ সেরা হলেন মাশরাফি

একুশে নিউজ
  • প্রকাশিত সময় : ৮ জানুয়ারি, ২০১৯, ১১:৫২
  • ৪০২ এই সময়
  • শেয়ার করুন

আজ মাশরাফি বিন মুর্তজার পারফরম্যান্স দেখলেই বোঝা যাবে। সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়ার সংজ্ঞাটা কী। ১৩ বছরের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে একবারই ৪ উইকেট পেয়েছেন, ২০১২ সালের জুলাইয়ে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। বেলফাস্টে ১৯ রানে নিয়েছিলেন ৪ উইকেট। মাশরাফি আজ ছাড়িয়ে গেলেন সেটিকেও।

এবারের বিপিএলে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ম্যাচ সেরা হলেন মাশরাফি

মাশরাফির কাছে অবশ্য বিপিএলের চেয়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচের পারফরম্যান্স বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সরাসরি না বললেও বেলফাস্টের পারফরম্যান্সটা যে তাঁর কাছে এগিয়ে, রংপুর অধিনায়কের কথাতেই পরিষ্কার, ‘আমি সব সময়ই আন্তর্জাতিক ম্যাচ হিসাব করি। আমার কাছে আন্তর্জাতিক ম্যাচের গুরুত্ব বেশি থাকে। তবে আমি যখন যেটা খেলি সর্বোচ্চ দিয়ে খেলার চেষ্টা করি। যদি আপনি বিশেষ গুরুত্বের কথা বলেন, শুধু আন্তর্জাতিক ম্যাচ হিসাব করি।’

টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে সেরা বোলিং করেছেন। আজ যে ৪ উইকেট পেয়েছেন, কোনটি বেশি আনন্দ দিয়েছে মাশরাফিকে? রংপুর অধিনায়ক বললেন, তামিম ইকবালের আউটটা তাঁকে বেশি আনন্দ দিয়েছে। কেন? মাশরাফির ব্যাখ্যা শুনলেই বুঝতে পারবেন, ‘চার উইকেটের ভেতরে অবশ্যই তামিমের উইকেটটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। স্মিথেরটাও আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তবে তামিম সব সময় আমাকে ভালোভাবে সামলেছে। দীর্ঘদিন তামিম আমাকে ভালো খেলে আসছে। টি-টোয়েন্টি, ওয়ানডে বা প্রথম শ্রেণির ম্যাচ যেটাই খেলেছি, ও সব সময় আমাকে ভালো সামলায়। ওর স্ট্রাইকরেটও ভালো থাকে আমার বিপক্ষে। ওর উইকেটটা অবশ্যই আমার জন্য ইতিবাচক ছিল। যেহেতু ও আমার বিপক্ষে সব সময়ই সফল হয়। ওর উইকেটটা নেওয়ার কারণে আমার আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। স্মিথ, লুইস, ওরা কী করতে পারতে পারে আমরা সবাই জানি। তবুও আমার ক্ষেত্রে তামিমের উইকেটটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’
 

অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার দুর্দান্ত বোলিং নৈপুণ্যে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ আসরের ষষ্ঠ ও নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে সহজ জয় পেয়েছ রংপুর রাইডার্স। আজ দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারায় রংপুর। বল হাতে ১১ রানে ৪ উইকেট নেন মাশরাফি।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং-এর সিদ্বান্ত নেন রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক মাশরাফি। বল হাতে নিয়ে বিধ্বংসী হয়ে উঠেন মাশরাফি। কুমিল্লার টপ-অর্ডারকে দুমড়ে-মুচড়ে দেন তিনি। টপ-অর্ডারের প্রথম চার ব্যাটসম্যানকেই শিকার করেন মাশরাফি। কুমিল্লার তামিম ইকবাল ৪, ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড় এভিন লুইস ৮, ইমরুল কায়েস ২ ও অধিনায়ক অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথ শুন্য রান করে মাশরাফির বলে আউট হন।

এরপর মিডল-অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যান পাকিস্তানের শোয়েব মালিক ও উইকেটরক্ষক এনামুল হককে বিজয়কেও বিদায় দেয় রংপুরের বোলাররা। মালিককে শূন্য রানে পেসার শফিউল ও বিজয়কে ২ রানে ফরহাদ রেজা ফিরিয়ে দেন।

উপরের ছয় ব্যাটসম্যান যখন দু’অংকের কোটা স্পর্শ করতে ব্যর্থ তখন ১৮ বলে ২৫ রানের ইনিংস খেলেন পাকিস্তানের শহিদ আফ্রিদি। তার ছোট্ট ইনিংসে ৩টি চার ও ১টি ছক্কা ছিলো। শেষ পর্যন্ত সবক’টি উইকেট হারিয়ে ৬৩ রানের পুঁিজ পায় কুমিল্লা। রংপুরের মাশরাফি ১১ রানে ৪, নাজমুল ইসলাম ২০ রানে ৩ উইকেট নেন।

জয়ের জন্য ৬৪ রানের ছোট টার্গেটে খেলতে নেমে শুরুতেই বড়সড় ধাক্কা খায় রংপুর। মারকুটে ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল ১ রান করে ফিরেন। গেইল ব্যর্থ হলেও আরেক ওপেনার মেহেদি মারুফ ও দক্ষিণ আফ্রিকার রিলি রোসৌ দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়ে। তখনও ম্যাচের ৮ ওভার বাকী ছিলো। মারুফ ৩৯ বলে ৩৬ ও রোসৌ ২৮ বলে ২০ রানে অপরাজিত ছিলেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স : ৬৩/১০, ১৬.২ ওভার (আফ্রিদি ২৫, লুইস ৮, মাশরাফি ৪/১১)।
রংপুর রাইডার্স : ৬৭/১, ১২ ওভার (মারুফ ৩৬*, রোসৌ২০*, রনি ১/১১)।
ফল : রংপুর রাইডার্স ৯ উইকেটে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : মাশরাফি বিন মর্তুজা (রংপুর রাইডার্স)।

এই বিভাগের আরো খবর

ব্রেকিং:

বাংলাদেশ-কাতারের মধ্যে ১০ চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই

কাল ১২ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

মালয়েশিয়ায় সামরিক মহড়ার সময় ২ হেলিকপ্টারের সংঘর্ষ, নিহত ১০

শ্রীলঙ্কায় রেস কার দুর্ঘটনায় নিহত ৭

অভিনেতা রুমি মারা গেছেন

চলতি মাসেই ঢাকা সফরে আসছেন দুই চীনা প্রতিনিধিদল

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে সর্বশক্তি দিয়ে লড়াই করবেন নেতানিয়াহু

ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান তুরস্কের

বৃহস্পতিবার থেকে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে

আজও ঢাকার তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছাড়াতে পারে