রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৩:৫৬ অপরাহ্ন

জরিপে আওয়ামী লীগ ২৪৮টি আসনে বিজয়ী হবে

একুশে নিউজ
  • প্রকাশিত সময় : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:৫৯
  • ১৫১ এই সময়
  • শেয়ার করুন

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ভোটারদের নিয়ে করা জরিপের ফল প্রকাশ করেছে বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ‘গবেষণা এবং উন্নয়ন কেন্দ্র (আরডিসি)’। সংস্থাটির জরিপ অনুযায়ী, এবারের নির্বাচনে ৩০০ আসনের মধ্যে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট বিজয়ী হতে পারে ২৪৮টি আসনে। অন্যদিকে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ঐক্যফ্রন্ট পেতে পারে মাত্র ৪৯টি আসন। গতকাল বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জরিপের এই ফল প্রকাশ করে সংস্থাটি।

আরডিসির দাবি, রাজনৈতিকভাবে নিরপেক্ষ হয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফলের আভাস পেতে জরিপটি পরিচালনা করা হয়। ২০১১ সালের উপজেলা জনসংখ্যা শুমারির দুই হাজার ২৪৯ জন ভোটার জরিপে অংশ নেয়। জরিপে অংশ নেওয়া ভোটারদের কাছে ব্যালট দেওয়া হয়।

ব্যালটে ছিল মহাজোটের নৌকা, ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ এবং জাতীয় পার্টির লাঙল প্রতীক। ‘এ ছাড়া সিদ্ধান্ত নেই, ভোট দেব না এবং উত্তর দেব না’—এই তিনটি ঘর ছিল। জরিপে অংশ নেওয়া ভোটারদের এলাকা নির্ধারণ করা হয় দৈবচয়ন পদ্ধতিতে। ভোটারদের মধ্যে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারকে ভোট দিয়েছে ৬০ শতাংশ। অন্যদিকে বিএনপি অন্তর্ভুক্ত হওয়া ঐক্যফ্রন্টকে ভোট দিয়েছে ২২ শতাংশ এবং জাতীয় পার্টিকে ভোট দিয়েছে ৩.৭ শতাংশ ভোটার।

তবে ১০.৩ শতাংশ ভোটার কোন দলকে ভোট দেবে তা এখনো নির্ধারণ করতে পারেনি। একই সঙ্গে ভোট দেওয়া থেকে বিরত থেকেছেন জরিপে অংশ নেওয়া ২.৭ শতাংশ ভোটার। এ ছাড়া ০.৬ শতাংশ ভোটার ভোটে অংশ নেবে না বলে জানিয়েছে। চলমান রাজনৈতিক বাস্তবতায় দেশের ৯৮ শতাংশ ভোটার ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে চায় বলে জরিপে উঠে এসেছে।

সংস্থাটি আরো জানায়, মহাজোটের সমর্থন বিভাগীয় শহর এবং গ্রামীণ এলাকার তুলনায় ছোট শহরে তুলনামূলক দুর্বল। বড় শহরের ৬২.২০ শতাংশ ভোটার নৌকার পক্ষে ভোট দিয়েছে। যেখানে ছোট শহরের মাত্র সাড়ে ৫৪ শতাংশ ভোটার মহাজোটের পক্ষে ভোট দিয়েছে জরিপে। একই সঙ্গে মাত্র ১৬.১ শতাংশ শহুরে নাগরিক ভোট দিয়েছে ঐক্যফ্রন্টে। ধানের শীষের চেয়ে নৌকায় ভোট বেশি দিয়েছে নারীরা। একই সঙ্গে ১৮ থেকে ২৯ বয়সী ৬১.৫০ শতাংশ তরুণ ভোট দিয়েছে নৌকায়। একই বয়সের ২৩ শতাংশ দিয়েছে ধানের শীষে ভোট।

আরডিসির বিশ্লেষণ অনুযায়ী এবারের নির্বাচনে স্বতন্ত্র এবং অন্যান্য দলের তিনটি আসনে বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ইসলাম ধর্মের তুলনায় হিন্দু ধর্মের ভোটাররা মহাজোটের প্রতি বেশি আগ্রহ দেখিয়েছে। জরিপে অংশ নেওয়া ভোটারদের মধ্যে ৫৬.৬০ শতাংশ মুসলিম ভোটার নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়েছে। ৮৮ শতাংশ হিন্দু ভোটার নৌকার পক্ষে ভোট দিয়েছে। জরিপে অংশ নেওয়া হিন্দু ধর্মের কোনো ভোটার ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দেয়নি।

জরিপটির সমন্বয়ক ছিলেন মার্কিন নাগরিক ফরেস্ট ই কুকসন। তিনি বলেন, ‘পৃথিবীর প্রায় সব গণতান্ত্রিক দেশে নির্বাচনের প্রাক-মুহূর্তে জরিপ পরিচালনা করা হয়। বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচনের ওপর পরিচালিত জরিপটি করার সময় রাজনৈতিক নিরপেক্ষতা বজায় রাখা হয়েছে। এ ছাড়া জরিপ পদ্ধতির আধুনিক সব মানদণ্ড অনুসরণ করা হয়েছে।’

এই বিভাগের আরো খবর

ব্রেকিং:

আফগানিস্তানে হামলা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা পাকিস্তানের

১৭ জেলায় হতে পারে ৬০ কিমি বেগে ঝড়, সতর্ক সংকেত

সরকারি হাসপাতালগুলোতে আছে রাসেল’স ভাইপারের এন্টিভেনম

বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে, কোথাও কোথাও ভারি বর্ষণের শঙ্কা

শিক্ষকদের কর্মবিরতিতে অচল ৫৫ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়

স্ত্রীকে ফেসবুক থেকে দূরে রাখা নিষ্ঠুরতার শামিল

রূপগঞ্জে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বাড়ি ঘিরে রেখেছে এটিইউ

ধনী কর্মকর্তাদের সম্পদের উৎসের খোঁজ শুরু করছে দুদক

টি-২০ বিশ্বকাপে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সেরার পুরস্কার পেলেন যারা

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের মানতে হবে যেসব বিশেষ নির্দেশনা