বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:০২ অপরাহ্ন

৩০০ আসনে মোট নারী প্রার্থী ৬৮ জন

একুশে নিউজ
  • প্রকাশিত সময় : ২১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৭:১১
  • ১৯৫ এই সময়
  • শেয়ার করুন

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে মোট প্রার্থীর তালিকায় নারী প্রার্থীর সংখ্যা এখনও আটকে আছে ৪ শতাংশের মধ্যে, যা নিয়ে সন্তুষ্ট নন নারী অধিকারকর্মীরা। 

জাতীয় সংসদে নারীদের জন্য সংরক্ষিত ৫০টি আসনে সরাসরি নির্বাচনের দাবি ছিল নারী অধিকার সংগঠনগুলোর। তবে তাদের সেই দাবি দশম সংসদেও পূরণ হয়নি। 

২০০৮ সালে নির্বাচন কমিশন নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করে রাজনৈতিক দলুগলোর জন্য বিধিমালা প্রণয়নের সময় ৩৩ শতাংশ নারী প্রতিনিধিত্বের শর্ত দিয়েছিল। তবে গত এক দশকেও কোনো দল তার ধারেকাছে পৌঁছাতে পারেনি।  

দুই বছর জরুরি অবস্থার সময় বাদ দিলে গত দুই যুগের বেশি সময় দেশে বাংলাদেশের সরকার ও সংসদে বিরোধী দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নারীরা। গত দুটি সংসদে স্পিকারের দায়িত্বেও আছেন একজন নারী। কিন্তু আইনসভায় নারীর অংশগ্রহণ বাড়ছে খুব ধীর গতিতে।

১৯৭১ সালে প্রথম সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী ছিলেন মাত্র দুই জন নারী। সর্বশেষ দশম সংসদ নির্বাচনে ৩০ জন এবং তার আগে নবম সংসদ নির্বাচনে ৬৪ জন নারী প্রার্থী ছিলেন।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় একাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রাথমিকভাবে ১১৮ জন মনোনয়ন পেলেও চূড়ান্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নারী প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৮ জন।

স্বতন্ত্র ৯৯ জন ও দলীয় ১৭৪৯ জনকে নিয়ে তিনশ আসনে এবার মোট প্রতিদ্বন্দ্বীর সংখ্যা ১৮৪৮ জন। অর্থাৎ প্রার্থীদের মধ্যে নারীর সংখ্যা দাঁড়াচ্ছে ৩.৬৮ শতাংশ। 

বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা হক মিনু একুশে নিউজকে বলেন, “নারী প্রার্থীদের সংখ্যা বাড়ছে এটা ইতিবাচক। তবে যে হারে বাড়ছে তা কোনোভাবেই আশাব্যঞ্জক নয়। রাজনৈতিক দলগুলো নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে তাদের প্রতিশ্রুতি পূরণ করবে- এই প্রত্যাশা আমরা করি।”

তিনি বলেন, সিদ্ধান্ত গ্রহণে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে। কমিটিতে প্রতিনিধিত্বের পাশাপাশি ভোটেও নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে। তা না হলে নারীর প্রকৃত ক্ষমতায়ন হবে না

একাদশ সংসদ নির্বাচনে যে ৬৮ জন নারী প্রার্থী রয়েছেন; এদের মধ্যে আওয়ামী লীগের হয়ে ‘নৌকা’ প্রতীকে ২০ জন, বিএনপির হয়ে ‘ধানের শীষ’ প্রতীকে ১৪ জন, জাতীয় পার্টির ‘লাঙল’ নিয়ে ৫ জন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ৬ জন ভোট করছেন।

এছাড়া ন্যাশনাল পিপল্স পার্টির (এনপিপি) ৪ জন, বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের (বিএনএফ) ৩ জন, জাকের পার্টির ৩ জন, বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির ২ জন, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএলের ২ জন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির ২ জন নারী প্রার্থী রয়েছেন ভোটের মাঠে।

এছাড়া জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ, গণফ্রন্ট, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি-সিপিবি, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির একজন করে নারী প্রার্থী নির্বাচন করছেন।

জাতীয় পার্টির ‘লাঙল’ প্রতীক নিয়ে দলটির কো-চেয়ারম্যান রওশান এরশাদ ময়মনসিংহ-৪ ও ৭ আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এবার একাধিক আসনে নির্বাচনে থাকা একমাত্র নারী প্রার্থী তিনি।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত নির্বাচনগুলোতে একাধিক আসনে প্রার্থী হলেও এবার তিনি কেবল টঙ্গীপাড়ার আসন থেকেই ভোট করছেন। রংপুরে তার আসনে নির্বাচন করছেন স্পীকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবার তিনটি আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেও দুর্নীতি মামলায় সাজা হওয়ায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে গেছে।     

চূড়ান্ত প্রার্থিতা পরে আদালতের নির্দেশনার পর প্রার্থী বাড়তে ও কমতে পারে। ৩০ ডিসেম্বরের আগে তা চূড়ান্ত হবে।

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বুধবার সাংবাদিকদের বলেন, কয়েকটি আসনের প্রার্থিতা নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। তাতে কিছু পরিবর্তন আসতে পারে।  

“যেখানে প্রার্থী একদম চূড়ান্ত হয়ে গেছে সেগুলোর ব্যালট ছাপিয়ে ফেলব। কারণ আমরা চাই এক সপ্তাহ আগে ব্যালট মাঠে চলে যাক। যেখানে সমস্যা আছে সেখানে ব্যালট আমরা একটু পরে ছাপাব। হাই কোর্ট থেকে নির্দেশনা পেলে আমাদের সেইভাবে সমন্বয় করতে হবে।”

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ২০জন নারী প্রার্থী

  • শেখ হাসিনা
  • বেগম মতিয়া চৌধুরী
  • সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী
  • ডাঃ দিপু মনি
  • সাহারা খাতুন
  • শিরীন শারমিন চৌধুরী
  • ইসমাত আরা সাদেক
  • সিমির হোসেন (রিমি)
  • জয়া সেন গুপ্ত
  • মাহাবুব আরা বেগম গিনি
  • মেহের আফরোজ চুমকি
  • মমতাজ বেগম
  • সাহিনা আক্তার
  • হাবিবুন নাহার
  • বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান
  • রেবেকা মমিন
  • সাগুফতা ইয়াসমিন
  • সেলিমা আহমেদ
  • শিরীন আক্তার
  • আয়শা ফেরদাউস

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ১৫জন নারী প্রার্থী

  • রিটা রহমান
  • সাবিনা ইয়াসমিন
  • রুমানা মোশেদ কনক চাঁপা
  • রুমানা মাহমুদ
  • মোছাঃ বেরিনা আক্তার
  • সালমা আলম
  • জিবা আমিনা খান
  • কুড়ি সিদ্দিকী
  • সানসিলা জেবরিন
  • তাহমিনা জামান
  • আফরোজা আব্বাস
  • শামীম আরা বেগম
  • শামা ওবায়েত ইসলাম
  • মোছাঃ তাহমিনা বুশদীর
  • হাসিনা আহমেদ
  • বিভিন্ন দলের ৩৩ জন নারী প্রার্থী
  • রশন এরশাদ -জাতীয় পাটি
  • রশন এরশাদ – জাতীয় পাটি
  • দিলারা খন্দকার – জাতীয় পাটি
  • রাহেলা পারভিন শিশির – জাতীয় পাটি
  • জেসমিন নূর বেবী – জাতীয় পাটি
  • শাহিদা খাতুন – এনপিপি
  • শামিমা নাসরিন – এনপিপি
  • মাহফুজা আক্তার – এনপিপি
  • লায়লা আঞ্জুমান আরা বেগম – জাকের পাটি
  • নাজমা আক্তার – জাকের পাটি
  • দেওয়ান কাম্রুনেছা – জাকের পাটি
  • সেলিনা সুলতান – জেএসডি
  • তানিয়া রব – জেএসডি
  • তাসমিয়া প্রাধান – জাগপা
  • মোছাঃ রাবেয়া বেগম – এনপিপি
  • মোছাঃ মেরিনা আক্তার – বিএমএল
  • মনিরা বেগম – গনফন্ট
  • শিল্পী রায় চৌধুরী – প্রাগতিশিল গণতান্ত্রিক দল
  • জলি তালুকদার – বাংলাদেশ কমিউনিন্ট পাটি
  • শম্পা বসু – বাসদ
  • হাসিনা হোসেন – বাংলাদেশ মুসলিম লীগ
  • সাদিকুন নাহার খান – বিএনএফ
  • সামসুন নাহার – বিএনএফ
  • মমতাজ বেগম – বিএনএফ
  • জুই চাকমা – বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি
  • নাইমা খালেদ মনিকা – বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি
  • আফ্রুজা বারী – স্বতন্ত্র
  • মোছাঃ আলেয়া বেগম – স্বতন্ত্র
  • চৌধুরী ফারিয়া আফরিন – স্বতন্ত্র
  • সালমা ইসলাম – স্বতন্ত্র
  • সুমি আক্তার শিল্পী – স্বতন্ত্র
  • সাবিনা খাতুন – স্বতন্ত্র
  • তানিয়া আফরিন – স্বতন্ত্র ।

এই বিভাগের আরো খবর

ব্রেকিং:

তীব্র গরমে পশ্চিমবঙ্গের চিড়িয়াখানায় প্রাণিদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা

স্বাধীনতা বিরোধী সব অপশক্তিকে প্রতিহত করব: কাদের

মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বাসের সঙ্গে পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৪ জনের প্রাণ গেল

‘মুজিবনগর দিবস’ বাঙালির ইতিহাসে এক অবিস্মরণীয় দিন

পশ্চিমবঙ্গের ৭ জায়গায় তাপমাত্রা ছাড়াল ৪০ ডিগ্রি

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: বিএনপি-জামায়াত নেতারাও ভোটের মাঠে

উড়িষ্যায় ফ্লাইওভার থেকে বাস পড়ে নিহত ৫

নতুন প্রেমের ইঙ্গিত মাহির

৬.৫ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে কাঁপল পাপুয়া নিউগিনি