রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১১:৪২ পূর্বাহ্ন

কামাল হোসেনের গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ

একুশে নিউজ
  • প্রকাশিত সময় : ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:১১
  • ১৫৬ এই সময়
  • শেয়ার করুন

শুক্রবার বুদ্ধিজীবী দিবসের সকালে এ ঘটনায় জোটের অন্যতম নেতা জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রব ও গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য জগলুল হায়দার আফ্রিকের গাড়িসহ ৬/৭টি গাড়ির ভাংচুরের শিকার হয়।

ঢাকা-১৪ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সৈয়দ আবু বকর সিদ্দিক সাজু ও আসম আবদুর রবের গাড়ি চালকসহ ১০/১২ জন নেতা-কর্মী হামলার এই ঘটনায় আহত হয়েছেন বলে ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের ভাষ্য। 

ছবি- একুশে নিউজ

গণফোরামের মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর লতিফুল বারী হামীম একুশে নিউজকে বলেন, সকাল ১০টার দিকে মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে কামাল হোসেনসহ জোট নেতারা বেরিয়ে এসে মূল ফটকের সামনে গাড়িতে ওঠার পর হামলার ওই ঘটনা ঘটে।

 “ছাত্রলীগ-যুব লীগের একদল সন্ত্রাসী লাঠি-সোঁটা নিয়ে এই হামলা চালায়। তারা স্যারের গাড়িতের লাঠি দিয়ে আঘাত করে। ফ্রন্টের নেতা আসম আবদুর রব সাহেবের গাড়িতেও তারা হামলা চালায়। গাড়ি চালক গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।”

ঐক্যফ্রন্টের নেতারা বলছেন, বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের সামনের রাস্তায় তাদের নেতা-কর্মীদের লাঠি দিয়ে পেটানো হয়। এ সময়ে নেতা-কর্মীরা এদিক ওদিক ছুটোছুটি করে আত্মরক্ষার চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে বিএনপি নেতা-কর্মীরা একজোট হয়ে স্লোগান দেওয়া শুরু করলে হামলাকারীরা সরে যায়।

এ বিষয়ে  কথা বলতে কামাল হোসেন শুক্রবার বিকালে সংবাদ সম্মেলনে আসবেন বলে গণফোরামের মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর হামীম  জানান।

হামলার অভিযোগের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে শাহ আলী থানা পুলিশের কর্মকর্তারা বলেন, এ ধরনের অভিযোগ নিয়ে কেউ তাদের কাছে আসেনি।

বিকেলে ঐক্যফ্রন্টের সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্য নিচে দেয়া হল 

ওই হামলা নিয়ে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরতে বিকালে পুরানা পল্টনের জামান টাওয়ারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসেন কামাল হোসেন অন্য নেতারা।

গণফোরাম সভাপতি কামাল বলেন, “শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের দিনে সেখানে এই ধরনের ঘটনা, আমাদের প্রতি কী হয়েছে- সেটা আমরা চিন্তা করি না। শহীদদের প্রতি তারা অবমননা করেছে। এটা মেনে নেওয়া যায় না, এটা সারা দেশের কোটি কোটি মানুষ মেনে নিতে পারে না।

“এ ঘটনায় শহীদদের আত্মা অবশ্যই কষ্ট পাচ্ছে। আমাদের একটা জায়গা যেখানে মানুষ আসে শ্রদ্ধা জানাতে, ১৪ ডিসেম্বর। এটা কি ভুলে গেছে তারা (সরকার), না তারা জানেই না। যেসব ছোকড়ারা ওখানে এসব কাজ করেছে। আমি দেখেছি, ছোকড়ারা এদিক-ওদিক দৌড়াদৌড়ি করছে, ইট পাটকেল মারছে, আহত করেছে, গাড়ি ভাঙার চেষ্টা করেছে। এরা ছোকড়া, টোকাই। কারা এদের ‘ভাড়া করেছে’, সে প্রশ্ন করেন তিনি। অবিলম্বে এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের পদক্ষেপ নিতে পুলিশ প্রধানের প্রতি আহ্বান জানান কামাল হোসেন।

তিনি বলেন, “আইজি সাহেব, আমি আপনার কাছে লিখিত চিঠি পাঠাব। আপনার সম্পর্কে আমার খুব ভালো ধারণা ছিল, যেন সেই ধারণা থাকে সেই কারণে আমি অনুরোধ করব, আপনি আমাদের কথাগুলোকে খুব গুরত্ব সহকারে দেখবেন। যে জিনিসগুলো আপনাদেরকে তথ্য হিসেবে দেওয়া হবে আপনি বিশ্বস্ত লোককে দিয়ে তদন্ত করাবেন। আমরা এই তদন্তকে পুরোভাবে সাহায্য করব, যাতে আমাদের শহীদ বুদ্ধিজীবীদের সন্মানে আমরা এই কাজটি করব।

আহতদের দেখিয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশে কামাল হোসেন বলেন, “তাদের মেডিকেল সার্টিফিকেট আছে। রব সাহেবের (আহত) আঙুলটা দেখছেন। আইজি সাহেব আমি কথা দিচ্ছি-  আমরা সব রকমের সাহায্য করব। আইনানুগ সাহায্য, তদন্ত করার সাহায্য করব।

“আপনার পুলিশের মধ্যে যাদের বিশ্বস্ত মনে করেন তাদেরকে ডেকে একটু দায়িত্ব দিন, আমাদের সঙ্গে দিন।”

ঘটনার বিবরণ দিয়ে তিনি বলেন, “ওখানে শহীদরা আছেন, সেখানে আমরা গেছি শ্রদ্ধা জানাতে। এটাতে যাদের গায়ে লাগে ওরা কারা? ভাড়াটিয়া। পয়সা নিয়ে এসব তারা করেছে। এটা কোনো নীতির কাজ হতে পারে  না। এই কাজ কোনো সুস্থ দেশপ্রেমিক মানুষের কাজ হতে পারে না।”

পুলিশ সদস্যদের প্রতি সংবিধানের বাইরে কোনো ‘অন্যায় আদেশ’ না মানারও আহ্বান জানান কামাল হোসেন।

এই বিভাগের আরো খবর

ব্রেকিং:

চীনে ‘মি-টু’ আন্দোলনকারী এক নারীর কারাদণ্ড

আশুলিয়ায় ২০ কিলোমিটার যানজট

বিশ্বকাপ থেকে পাকিস্তানের বিদায়

দুপুরের মধ্যে ৬ জেলায় ঝড়ের আভাস

হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু

১৮ হাজার ৫৬৬টি পরিবারকে আজ বাড়ি হস্তান্তর করবেন প্রধানমন্ত্রী

জাতিসংঘে আমেরিকা প্রস্তাবিত ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতি প্রস্তাব পাস

বাংলাদেশ থেকে আরও দক্ষ কর্মী নেবে জাপান

মোদির নতুন মন্ত্রীসভায় থাকছেন যারা, তালিকা প্রকাশ

৭ দিনের রিমান্ডে কনস্টেবল কাউসার